ওয়্যারলেস ইন্টারনেট সার্ভিস

প্রিয় উদ্দ্যোক্তা বন্ধু , আগে কোন একটি প্রকাশনায় আমি আপনাদের বলেছিলাম যে, সকল উদ্দ্যোক্তা এক হয়ে আমরা ইন্টারনেট সংযোগ সরাসরি বি,টি,সি,এল থেকে নিতে পারি কিনা ? অনেকেইএ বিষয়ে আমার সংগে ফোনে যোগাযোগ করেছেন। কিন্তু প্রধান যে সমস্যাটি সকলেই বলেছেন, তা হচ্ছে একটি নির্দিষ্ট পরিমান অর্থ ব্যয় করে (৫০ হাজার থেকে ১.৫০ লাখ টাকা) অনেকেই এ রকম একটি ব্যবস্থাপনা করতে পারবেন না। তারা আমাকে একটি বিকল্প ব্যবস্থাপনার বিষয়ে ভাবতে বলেছিলেন। যদিও কিছু সংখ্যক উদ্যোক্তা এরকম একটি বিষয়ে আগ্রহী ছিলেন, যা একান্তই স্বল্প। তাই আমরা বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের সাথে যোগাযোগ করেছি এ বিষয়ে আমাদের কোন কারিগরী এবং আর্থিক সহযোগিতা প্রদান করা যায় কি না ? এর মাঝে আমরা নিউএরা সফ্টওয়্যার সহ আরো কিছু প্রতিষ্ঠানের সহযোগিতার আশ্বাস পেয়েছিলাম । সাম্প্রতিক কালে আমরা এর একটি রুপরেখাও পেয়েছি, যা উদ্যোক্তাদের জন্য নিচে দেয়া হলো। আগ্রহী উদ্যোক্তাদের, অতি সত্বর আগ্রহ প্রকাশের জন্য অনুরোধ করা হলো। আগামী ৩০/০৯/২০১৬ ইং এ-বিষয়ে ১ম নিয়মে মতামত দেবার শেষ সময়।

নিয়ম ১

ঞ্জ্যতব্য বিষয়ঃ –

১. উদ্যোক্তা গন কে অবশ্যই উদ্যোক্তা ক্লাবের সদস্য হতে হবে, যা বিনা মুল্যেই হওয়া যাবে।

২. ইউ.ডি.সি / পি.ডি.সি / সি.ডি.সি উদ্যোক্তা গণ ১৫০০/- মাসিক মুল্যে ১ এম.বি.পি.এস আনলিমিটেড ইন্টারনেট ব্যবহার করতে পারবেন। ইউ.ডি.সি / পি.ডি.সি / সি.ডি.সি উদ্যোক্তা গণ যে কাউকে এই সংযোগ শুধুমাত্র উদ্যোক্তা ক্লাবের সদস্য হওয়া সাপেক্ষে প্রদান করিতে পারবেন। ক্লাবের সদস্যদের ইউ.ডি.সি / পি.ডি.সি / সি.ডি.সি এর সেবা কার্যক্রমে যুক্ত থাকতে হবে, যা সংশ্লিষ্ট উদ্যোক্তা যাচাই বাছাই করবেন।

৩.   প্রাথমিক ভাবে ২ মাসের বিল প্রদান করতে হবে, এক মাসের বিল সিকিউরিটি ডেপোজিট হিসেবে রাখা হবে। প্রতিমাসে সংযোগ প্রদানের দিন হতে ৩০ দিন এর মধ্যে পরবর্তী মাসের বিল পরিশোধ করতে হবে। অন্যথায় সংযোগ বিচ্ছিন্ন হবে।

৪. উদ্যোক্তা ক্লাবের সদস্যদের একটি ৩জি মোডেম থাকতে হবে কিংবা কিনতে হবে। এন্ড্রয়েড ফোন অথবা অন্য কোন ৩জি ফোন থাকলে সেবাটি দেয়া যাবে।

৫. উদ্যোক্তা ক্লাবের সদস্যদের একটি গ্রামীন সিম থাকতে হবে কিংবা কিনতে হবে।

৬. এই ওয়্যারলেস আনলিমিটেড ইন্টারনেট পোর্টেবল এবং বাংলাদেশের সকল স্থানে ব্যবহার করা যাবে।

৭. সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার নুন্যতম ৩০ দিন আগে জানাতে হবে। অন্যথায় সিকিউরিটি মানি ফেরত পাওয়া যাবে না।

৮. প্রথম বার উদ্যোক্তা কে ১০ জন সদস্য সংগ্রহ করতে হবে, যারা এরুপ সংযোগ ব্যবহার করতে ইচ্ছুক।

নিয়ম ২

এছাড়াও যারা, বি,টি,সি,এল থেকে সরাসরি সংযোগ নিয়ে নিজস্ব অর্থায়নে ইন্টারনেট সার্ভিস দিতে চান, তাদের কারিগরী সহযোগিতা প্রদান করা হবে, যাতে তারা তার দিয়ে কিংবা তার ছাড়া (ওয়্যারলেস) আই.এস.পি হিসেবে কাজ করতে পারেন। এক্ষেত্রে ১ এমবিপিএস ইন্টারনেট এর মুল্য বি,টি,সি,এল এর নির্ধারিত মুল্য ৯৬০/- হবে।

এক্ষত্রে খরচের একটি নমুনা এমন হতে পারেঃ

বি,টি,সি,এল থেকে সংযোগ নিতেঃ

পোর্ট খরচঃ ৫০০০ টাকা

ফাইবার অপটিক খরচ (বি,টি,সি,এল থেকে গ্রাহক অফিস পর্যন্ত) – প্রতি কিলোমিটার ১১,০০০ টাকা + সংস্থাপন ব্যয়

প্রতি কিলোমিটারে একটি মিডিয়া কনভার্টার – ৩৫০০ থেকে ৫০০০ হাজার টাকা প্রতিটি।

নিয়ম ৩

তবে এক্ষেত্রে একটি বিকল্প ব্যবস্থা হতে পারে ওয়্যারলেসঃ

মনে করুন বি,টি,সি,এল অফিসের কাছাকাছি একজন উদ্যোক্তা এই সংযোগটি নিলো, তাতে অবশ্যই তার ব্যয় অনেক কম হবে। এবার তার থেকে পাশের উদ্যোক্তাগন ওয়্যারলেস সংযোগ নিলো। নিচের চিত্রটি দেখলে বিষয়টি পরিষ্কার হয়ে যাবে।

wireless

এখানে মাঝের জন মূল উদ্যোক্তা আর তার চারপাশে চারজন উদ্যোক্তা । এদের মাঝে দুরত্ব হতে পারে এক কিলো থেকে দুই কিলোমিটার। এর বেশি হলে মাঝে একটি রিপিটার ব্যবহার করতে হবে। এই পদ্ধতিটি বেশি সাশ্রয়ী হবে। ইচ্ছে করলে এরকম ওয়্যারলেস সেটআপের মাধ্যমে আপনি জনগন কে ইন্টারনেট সার্ভিস দিয়ে আয় করতে পারেন । সেক্ষেত্রে আপনি ৫০ এমবি নিয়ে ৭০-৯০ জনকে এক এম,বি,পি,এস সংযোগ প্রদান করতে পারেন। ওয়্যারলেস সংযোগ বাবদ গ্রাহকের থেকে ৩০০০-৩৫০০ টাকা নেয়া যেতে পারে আর এক এম,বি,পি,এস এর জন্য ১,০০০ টাকা, ৫১২ কেবিপিএস ৬০০ টাকা মাসিক চার্জ নিয়ে আপনি লাভজনক একটি বিজনেস শুরু করতে পারেন। পরবর্তীতে এই নেটওয়ার্কের মাধ্যমে আই,পি টিভি সর্ভিস দিয়েও বাড়তি আয় করতে পারেন। একটি উপজেলার সকল উদ্যোক্তা যদি এরকম সার্ভিস দেবার ব্যপারে একমত হতে পারেন , তবে খুব সহ্জেই এটা করা যেতে পারে এবং অবশ্যই অাপনারা লাভবান হবেন। একই উপজেলার সকল উদ্যোক্তা এক হয়ে এই সার্ভিস দিতে চাইলে আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন । অবশ্যই সহযোগিতা করবো, যাতে আপনারা স্বল্প ব্যয় কিংবা বিনা ব্যয়েই এরকম একটি ব্যবসা শুরু করতে পারেন। আসলে সবাই মিলে একত্র হতে পারলেই লাভজনক কিছু করা সম্ভব।

আমরা উপরে তিনটি পদ্ধতি আলোচনা করেছিঃ

১. গ্রামীন ফোনের সিম ব্যবহার করে ইন্টারনেট ব্যবহার করা, যা মাসিক ব্যয়বহুল কিন্তু প্রাথমিক ভাবে সস্তা, তবে এটা আনলিমিটেড।

২. একক ভাবে বি,টি,সি,এল থেকে সংযোগ নেয়া যা প্রাথমিক বিশাল ব্যয়বহুল কিন্তু মাসিক খরচ একটু কম এবং এটা ব্রডব্যান্ড।

৩. একটি উপজেলার সকল উদ্যোক্তা মিলে বি,টি,সি,এল সংযোগ নিয়ে ওয়্যারলেসের মাধ্যমে ইন্টারনেট সার্ভিস প্রদান করে লাভবান হওয়া।

এ বিষয়ে আপনার আগ্রহ, প্রশ্ন কিংবা মতামত জানান ।

 

 

7 thoughts on “ওয়্যারলেস ইন্টারনেট সার্ভিস

  1. Pingback: মোবাইল ফোন সার্ভিসিং – রিয়েল উদ্দ্যোক্তা

  2. asim.ghosh48@yahoo.com

    আমি ব্যবসাটি শুরু করতে চাই। কিভাবে শুরু করতে পারি? একটু বিস্তারিত বলবেন প্লিজ……….
    অসীম কুমার ঘোষ
    পাথরাইল ইউডিসি
    দেলদুয়ার, টাঙ্গাইল।
    01713-562313
    01613-562313

  3. rayhan.romi@gmail.com

    একজন উদ্যোক্তার জন্য আপনার উদ্ভাবনী ব্যবসা ও জীবিকা অর্জনের জন্য
    ওয়্যার্লেস ইন্টারনেট সার্ভিস বিজনেস টা আমার খুব বেশি আকর্ষণ করেছে।
    #প্রিয় লেখক Real Uddokta ভাইজান
    আমি আপনার দৃষ্টি আকর্ষন করছি,,
    এবং এটাও আশা করি যে আপনার আইডিয়া টা খুব দারুণ ভাবে আমাদের রামগড় পৌরসভায় চালু করা সম্ভব।
    ভাইয়া আমি আপনার সহযোগিতা বিশেষ
    কামনা করতে পারি কি???
    e-mail – rayhan.romi@gmail.com
    Hotline- +8801777690609

  4. rayhan.romi@gmail.com

    প্রিয় রেয়েল উদ্যোক্তা…..
    সহ যোগিতা বা দিক নির্দেশনা চাই
    আমি খাগড়াছড়ি জেলার রামগড় পৌরসভা ডিজিটাল সেন্টারে উদ্যোক্তা হিসাবে নিয়োগ পাই
    ২৪/০৯/২০১৬ সালে।
    নিজের অর্থে ডিজিটাল সেন্টারের উপকরণ গুলো কিনে, শুরু করি ডিজিটাল এর সূচনা।

    ১/ কিন্তু আমি যে উদ্যোক্তা সেই পরিচয় পত্র আমি আজও পাইনি, কিভাবে পাবো তাও বুঝতে পারছি না,, আমি উদ্যোক্তা পরিচয় পত্র কিভাবে পাইতে পারি দয়া করে আমাকে পরামর্শ দিলে আশা করি উপক্রিত হতাম।

    ২/ ওয়েব পোর্টাল এ উদ্যোক্তাদের যেই হালনাগাদ ও বিভিন্ন তথ্য বা উদ্যোক্তা প্রোফাইল
    উদ্যোক্তার আয় ব্যয় এবং কি কি সেবা জনগন কে দিচ্ছি তার হিসাব প্রদান করার জন্য ওয়েব সাইটের ইউজার পাসওয়ার্ড পাইনি,, কি ভাবে আমি পেতে পারি দয়া করে পরামর্শ দিন।

    ৩/ জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধ এর কাজ আমাকে দেয়া হচ্ছে না এই কাজ টুকু করছে টিকা প্রদান কারি
    সুপারভাইজার। ৫/৬ মাস হোল ইনকাম তো দুরের কথা বরং আমার উলটা খরচ করতে হয়।
    এমন অবস্থায় ভবিশ্যত কিছুই আশা করা ভুল হয়ে দাড়িয়েছে। কত শতবার মেয়র বা সচিব কে
    বলার পরেও সুফল পাচ্ছি না।

    উদ্যোক্তা রেজিষ্ট্রেশন করেছি কিন্তু কোন প্রকার সাড়া পাচ্ছি না a2i তে ইমেইল করেছি অনেক বার তার পরেও কোন সাড়া পাচ্ছি না।
    প্লিজ আপনাদের সহযোগীতা চাই।

    ধন্যবাদ প্রিয় ওয়েব সাই রিয়েল উদ্যোক্তা।

মন্তব্য করুন